শহীদ সন্তান-৭১

যাদের সৌভাগ্য হয়নি স্বচক্ষে দেখার এই স্বাধীন বাংলা , কোথায় আছে কেমন আছে তাদের উত্তরাধকিার ? ৩০ লক্ষ্য তাজা প্রাণ স্বাধীনতার তরে আত্মহুতি দিয়েছেন, আজ অর্ধ শত বৎসর পরেও তাদের পরিবার অনাহারে অর্ধাহারে ধূঁকে ধূঁকে প্রাণ দিচ্ছে। নেই তাদের সামাজিক সম্মান, নেই রাষ্ট্রিয় স্বীকৃতি, কে দিবে তাদের শান্তনা কে দিবে তাদের ভরসা? আমরা শহীদ মুক্তিযুদ্ধার সন্তান, রক্তের সাগর পারি দিয়ে মাত্র হাতে গুনা কয়েক জন তীরে এসে দাঁড়িয়েছি । পিতার রক্তের শোককে শক্তিতে পরিনত করে আজ আমরা ছুটেছি বাংলার মাঠে প্রান্তরে, চিহ্নিত করতে শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান । ইতি মধ্যে গড়ে নিয়েছি ”বাংলাদেশ শহীদ মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ও পরিবার কল্যান পরিষদ (শহীদ সন্তান-৭১)” ইন-শাল্লাহ জাতির জনকের কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে আমরা সদা জাগ্রত । আমাদের প্রত্যাশা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে সম্মানিত রাখা। আমাদের পিতাগন বঙ্গবন্ধুর ডাকে স্বাধনিতা যুদ্ধে প্রান দিয়েছেন আর আমরা তারই কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সহযোদ্ধা হিসাবে কাজ করে যাব।

উক্ত সংগঠনের কার্যকর পরিষদের লোকজন সাǐাৎ করলেন অবঃ কর্ণেল ফারুখ খান সাহেবের সাথে।

উক্ত সংগঠনের সভাপতি , সহ সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রীকে ফুলের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করেন।

উক্ত সংগঠন কতৃক ১৬ই ডিসেম্বর বিজয় দিবস পালন।

উক্ত সংগঠন কতৃক ৫ ই জানুয়ারী গণতন্ত্র দিবস পালন

উক্ত সংগঠনের ময়মনসিংহের প্রতিনিধিগন দ্বারা ২১ শে ফেব্রæয়ারী পালন।

উক্ত সংগঠন কতৃক ২৫ শে মার্চ গনহত্যা দিবস পালিত।

বাংলার সবুজ ঘাসের উপর উক্ত সংগঠনের সদস্যরা ২৬ শে মার্চ পালন করেন ।

উক্ত সংগঠনের সদস্যরা শহীদ মিনারে এক মিনিট নিরবতা পালন ।

উক্ত সংগঠনের সদস্যরা মানব বন্ধন করছেন মায়ানমার রোহীঙ্গাদের উপর নির্যাতন বন্ধের জন্য।

উক্ত সংগঠনের সভাপতি কবি ড. সেলিনা রশিদের সাথে বীর মুক্তিযোদ্ধা তারামন বিবি (বীর প্রতীক)।

উক্ত সংগঠনের মহা সম্মেলনে প্রধান অথিতি ছিলেনে এডভোকেট আনিসুর রহমান ময়মনসিংহ বিভাগীয় আন্দোলনের সভাপতি (২০১৮)।

উক্ত সংগঠন কতৃক শহীদ মেজর জেনারেল মোশারফ বীর উত্তম এর স্বরন সভায় অংশ গ্রহন।

মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি গভীর ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে মিছিল ও সমাবেশ ।

উক্ত সংগঠন কতৃক শহীদ বুদ্ধিজীবি দিবস পালন।

প্রধান মন্ত্রী কর্তৃক শহীদ সন্তানদের ভাতা বৃদ্ধির আনন্দ উৎসব।

উক্ত সংগঠন কতৃক মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান সমোন্নত রাখতে মিছিল।

ড. জাফর উল্লার উপর হাত তোলার প্রতিবাদে উক্ত সংগঠনের সভানেত্রী মিছিলে অবস্থান করছেন ।

উক্ত সংগঠনের সভাপতি বিজয়ের মাসে ময়মনসিংহ জেলার আওয়ামীলেিগর সাধারন সম্পাদকের মাথায় বিজয়ের মুকুট পড়ালেন এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে।

উক্ত সংগঠনের প্রতিনিধিগন বেলুন উড়িয়ে বিজয়ের আনন্দ উৃপভোগ করলেন (২০১৭)

উক্ত সংগঠনের সভাপতি কবি ড.সেলিনা রশিদ প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক জাতীয় শ্রেষ্ঠ সমবায়ী হিসেবে স্বর্ণপদক পাওয়ায় মাল্যদান

উক্ত সংগঠন কর্তৃক জামালপুরে কমিটি গঠন।

উক্ত সংগঠনের সভাপতি ও সহ সভাপতি কর্তৃক শেরপুরের বীদবা পল্লীর বীরঙ্গনাদের সাথে।

জামালপুরে বন্যার্ত মানুষের মাঝে উক্ত সংগঠন কর্তৃক ত্রান বিতরন।

উক্ত সংগঠনের বিভাগীয় সম্মেলনে ৮ টি বিভাগের প্রতিনিধিগন উপস্থিততে আলোচনা সভা।(২০১৬)

উক্ত সংগঠনের জেলার প্রতিনিধিগন জননেত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধ সংগ্রহ শালার সামনে দাড়িয়ে

উক্ত সংগঠন কর্তৃক মে দিবস পালন।

উক্ত সংগঠনের বার্ষিক সাধারন সভায় ৫০ টি জেলার প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন (২০১৭)।

শহীদ সন্তান-৭১ এলবাম:

Search

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ